Kodular Vs Niotron Vs Android Builder Vs AppZard.



আসসালামু আলাইকুম-

আপনাদের সকলকে স্বাগতম জানাই আমার এই জনতার কথা ওয়েবসাইটটিতে। আপনারা জানেন আমি প্রতিনিয়ত আপনাদের সামনে নিয়ে আসি নিত্যনতুন সিস্টেম, ট্রিকস এবং অন্যান্য ডেভেলপমেন্ট বিষয়ক পোস্ট। আজ আমি Kodular বনাম Niotron বনাম Android Builder বনাম AppZard নিয়ে কথা বলবো তো চলুন শুরু করা যায়।

আসলে এই পোষ্টের মূল অংশটি হলো কোন বিল্ডারটি আপনার জন্য বেস্ট হবে এবং কোন বিল্ডারটিকে আমি আপনাদের জন্য সবচাইতে ভালো হবে বলে মনে করি সেই বিষয়।

Kodular এর কিছু বৈশিষ্ট্য-

শুরুতেই বলে রাখি এই ভিডিওটি সবচেয়ে জনপ্রিয় বিল্ডার এবং এ নিয়ে কোন সন্দেহ নেই যে এ বিল্ডারটি নিরাপদ ভাবে আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। কিন্তু এর ব্যবহার কতটা সুবিধাজনক হবে তা নিয়ে আমার যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। কারণ অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে আয় করার সবচাইতে বড় উপায় হলো অ্যাড ব্যবহার করা এবং আপনারা যদি সেই অ্যাড ব্যবহারই করতে না পারেন তাহলে আয় তো আর হবে না। সে ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়ায় যে কিভাবে আমরা আয় করতে পারি আর এক্ষেত্রে Kodular সবচাইতে বেশি পিছিয়ে রয়েছে। আপনারা জানলে অবাক হবেন বর্তমানে যেসব বিল্ডার মার্কেটে চালু হচ্ছে সেগুলো Kodular এর চেয়েও বেশি Components দিয়ে থাকে। যদিও সেগুলোতে বেশকিছু সমস্যা হয়ে থাকে, তবে নিরাপদ সহজ এবং কোন সমস্যা ছাড়া যদি কোন বিল্ডার আপনি ব্যবহার করতে চান তাহলে আপনাকে এই Kodular এর দিকেই ফিরে আসতে হবে। কিন্তু শুরুতে Kodular অনেক ভালো থাকলেও দিনে দিনে এর অবস্থার অবনতি হতে থাকে অনেকেই Kodular ছেড়ে অন্যান্য বিল্ডারের দিকে ঝুঁকতে থাকে। এর মূল কারনই হল এর এডসেন্স ডিজেবল হয়ে যায়। যার কারণেই যত সমস্যার সৃষ্টি হয় আর আজ এই সমস্যার কারণেই এই বিল্ডারটি জনপ্রিয়তা দিন দিন হারাচ্ছে। শুরুতে Kodular অনেক জনপ্রিয় হতে থাকে এর ইউজার প্রায় 10 মিলিয়নেরও বেশি হয়, তবে ২০০৯ সালের দিকে এর এডসেন্স একাউন্ট ডিজেবল হয়ে যায়, যার কারণে Kodular বেশ কিছুদিন অ্যাড দেওয়া বন্ধ করে দেয়। এতে করে ইউজাররা মারাত্মক বিপদে পড়ে যায়। এছাড়াও বেশ কিছুদিন পর তারা এড দিতে শুরু করলেও নানান সমস্যা তারা সৃষ্টি করে। তারা অস্বাভাবিক পরিমাণে কমিশন নিতে থাকে আর এ বিষয়টি ইউজারদের কাছে অত্যন্ত দুঃখজনক লাগে এবং তারা এই বিল্ডার ব্যবহার করা বন্ধ করতে থাকে। তবে ধীরে ধীরে কমিশন সিস্টেম বন্ধ করে App Approval সিস্টেম চালু করে, এতে করে তাদের কিছুটা উন্নতি হলেও নানান রকম সমস্যা দেখা দেয়। পরবর্তীতে তারা  Zero Commission সিস্টেম চালু করে তবে এটি পেইড হয়ে যায়। এতেও খুব একটা উন্নতি না দেখতে পেয়ে তারা গুগলের সাথে চুক্তি সম্পন্ন করে। তবে এতে করে অন্যান্য সমস্যার শুরু হয়েছে। আপনি যদি অ্যাডসেন্সে ব্যবহার করে আয় করতে চান তাহলে আপনাকে এখন থেকে গুগল অ্যাড ম্যানেজার ব্যবহার করতে হবে আর এটি সবচাইতে বড় অসুবিধা হলো এটির Approval. আপনাকে Approval থেকে নিতে হলে আপনাকে অনেক বেশি পরিমাণে পরিশ্রম করতে হবে যা আপনি কখনোই করতে চাইবেন না। এছাড়াও যারা Beginner তাদের জন্য এটি প্রায় অসম্ভব। তাই আমি আপনাদেরকে এমনসব অ্যাপের ক্ষেত্রেই Suggest করব যেসব App বানালে আপনাকে Ad ব্যবহার করতে হবে না। যদি এরকম ব্যবহার বানান তাহলেই আপনি Kodular ব্যবহার করতে পারেন না হলে না করাই ভালো।

Niotron এর বৈশিষ্ট্য-

আসলে আমি Niotron সম্পর্কে বেশি কিছু বলব না। কারণ এটি সম্পূর্ণ পেইড বিল্ডার। সেহেতু আপনারা খুব একটা যে এটি ব্যবহার করবেন না সেটি আমি সম্পূর্ণ নিশ্চিত। এ বিল্ডারটির কথা যদি আমি বলি তাহলে শুরুতেই এর ডিজাইন সম্পর্কে বলতে হচ্ছে। কারণ এর ডিজাইন এতটাই সুন্দর করা হয়েছে যে কল্পনারও বাইরে। এটি শুরুতে কিছুটা জনপ্রিয়তা নিয়ে শুরু করলেও দিন দিন এর প্রতিদ্বন্দ্বিতা বাড়তে থাকে। আর সময়ের সাথে সাথে তারা টাকার প্রয়োজনে উপলব্ধি করতে থাকে। তবে তাদের একটি মূলনীতি ছিল আর সেটি হলো "No Commission" আর এই নীতির জন্যই তারা বিল্ডারটিকে পেইড করতে বাধ্য হয়। আপনারা জানলে অবাক হবেন যদি আমি Kodular এর সাথে এই বিল্ডারের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করি অনেক ক্ষেত্রেই এই বিল্ডারটি Kodular কে ছাড়িয়ে যাবে। তাই এই বিল্ডারটিকে আমি দ্বিতীয় অবস্থানে রাখবো। তবে যেহেতু বিল্ডার পেইড, তাই এটি জনপ্রিয়তা লাভ করতে সক্ষম হয়নি। আমি কখনোই বাংলাদেশীদের এবিলিটি ব্যবহার করতে বলবো না কারণ এটি আপনাদের জন্য উপকারী হবে না এটি বেশ সমস্যার কারণ হবে আপনাদের জন্য। আর এটাই হলো এমন একটি বিল্ডার যেটি সরকারি সার্টিফিকেট প্রাপ্ত অর্থাৎ এটি তাদের দেশিয় ওয়েবসাইট হিসেবে স্বীকৃত।

Android Builder এর বৈশিষ্ট্য-

এই বিল্ডার নিয়ে আমি বাড়তি কিছুই বলবো না। কারণ আমি আগের পোস্টেও এই নিয়ে আলোচনা করেছি। আপনি চাইলে সেই পোস্টটি পড়ে আসতে পারেন।





AppZard এর বৈশিষ্ট্য-

এই বিল্ডারটি শুরুতে অনলাইনে থাকলেও বর্তমানে অফলাইন বিল্ডার। আপনি যদি কোন বিল্ডার কে ইন্টারনেট ছাড়াই ব্যবহার করতে চান তাহলে এই বিল্ডারটি আপনার জন্য বেস্ট। তবে অনলাইন বিল্ডার এবং অফলাইন বিল্ডার এর পার্থক্য রয়েছে। কারণ এটি আপনি শুধুমাত্র কম্পিউটারে ব্যাবহার করতে পারবেন মোবাইলে পারবেন না। এর কারণ মোবাইলে Java কাজ করেনা। আর সবচেয়ে বড় কথা হলো এই বিল্ডারটি একটুও জনপ্রিয় নয়, এমনকি এতে আপনি খুব বেশি সুবিধাও পাবেন না আর এই বিল্ডারের এডমিনরা বিল্ডারটি নিয়ে খুব বেশি চিন্তা করে না। তাই এই বিল্ডারটিকে আমি ব্যবহারই করতে বলবো না।

*

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন